প্রেমিকাকে চড় মারার অধিকার না থাকলে তা প্রেমই নয়

|

‘প্রেমিকাকে চড় মারার অধিকার না থাকলে সেটা প্রেমই নয়’ বলে মন্তব্য করে নতুন বিতর্ক উস্কে দিয়েছেন বলিউডি ছবি ‘কবীর সিং’ এর পরিচালক সন্দীপ রেড্ডি ভাঙ্গা। সম্প্রতি মুক্তি পাওয়া এ ছবিটির নায়িকা কিয়ারাকে নায়ক শাহিদ কাপুরের চড় মারা নিয়ে বিতর্ক চলার মাঝেই পরিচালক সন্দীপ রেড্ডি এমন কথা বলেছেন। তার মতে, আবেগ থাকলে প্রেমিকাকে চড় মারা কোনো ব্যাপার নয়।

মুক্তির পর থেকেই কবীর সিং চরিত্রটি নিয়ে বিতর্ক চলছে।ডাক্তারির কৃতি ছাত্র কবীর প্রেমে পড়ে কলেজের জুনিয়র ছাত্রী প্রীতির। কিন্তু যে পন্থায় প্রীতিকে পেতে চায় কবীর বা একজন ডাক্তার হিসেবে নেশাগ্রস্ত অবস্থায় সে যাকিছু করে- এসব নিয়ে প্রথম দিন থেকেই প্রশ্নের মুখে পড়েছে ছবিটি। ভালবাসা কি জোর করে হয়? ভালোবেসে কাউকে না পেলে তাকে নির্দ্বিধায় চড় মারা যায়? এসব প্রশ্নই ঘুরপাক খেয়েছে সবার মনে।সপ্তাহেই ২শ’ কোটি রূপির গণ্ডি পার করে ফলেছে ‘কবীর সিং’। তবে তাতেও বন্ধ হচ্ছে না ছবি ঘিরে বিতর্ক। এর মধ্যেই ছবিটি নিয়ে প্রথম টিভি সাক্ষাৎকারে সব বিতর্কের জবাব দিয়ে পরিচালক সন্দীপ রেড্ডি বলেছেন, “আমরা যখন গভীরভাবে কাউকে ভালোবাসি, তখন প্রেমিকাকে চড় কষানো কোনও বিষয় নয়। একে অপরকে চড় মারার অধিকার আছে। আর আবেগ থাকলে এগুলো হবেই।এতে দোষের কিছু নেই।

ছবিটির একটি দৃশ্য উল্লেখ করে সন্দীপ বলেন, “প্রীতি কবীরকে চড় মারতে পারলে কবীর-এর ও অধিকার আছে তাকে চড় মারার। যে সম্পর্কে প্রেমিকাকে চড় মারার অধিকার নেই, চুমু খাওয়ার অধিকার নেই,ছোঁয়ার অধিকার নেই সে সম্পর্ক আবেগহীন, নিষ্প্রাণ। সমালোচকদের পরগাছার সঙ্গে তুলনা করে তিনি আরো বলেন, “ছবিটির সমালোচনা যারা করছেন তারা জীবনে কাউকে ভালবাসেননি। অথবা তারা আমাকে ঘৃণা করেন।








Leave a reply