দীর্ঘ ১৮ মাস অপেক্ষার পর খুলল বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হল

|

উৎসবমুখর পরিবেশে হলে প্রবেশ করেছে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় আবাসিক শিক্ষার্থীরা।সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের তিনটি আবাসিক হল বঙ্গবন্ধু হল, শের-ই বাংলা হল ও শেখ হাসিনা হল খুলে দেওয়া হয়।

মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে প্রায় ১৮ মাস পরে হল ও কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি খুলে দেওয়া হলো। এদিন যেসব শিক্ষার্থী কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের কমপক্ষে এক ডোজ নিয়েছেন তাদেরকে হলে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়।

শের-ই বাংলা হলের আবাসিক শিক্ষার্থী নবির হোসেন জয় বলেন, আজকে প্রবেশ করতে পেরে আমরা অনেক খুশি। সবাই উৎসবমুখর পরিবেশে হলে প্রবেশ করছে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে সাধুবাদ জানাই।

তিনি আরও বলেন, অনেকদিন যাবত সবাই বাইরে ছিল, বাইরের খরচ, আবাসন ব্যবস্থা এগুলো অনেক ব্যয়বহুল ছিল। এছাড়া বাইরের পরিবেশনও তেমন ভালো না, হলের পড়ালেখার পরিবেশ অনেক সুন্দর।

শেখ হাসিনা হলের আবাসিক শিক্ষক মার্জিয়া নমি স্বাক্ষরিত এক নোটিশে বলা হয়, যেসব ছাত্রী কমপক্ষে এক ডোজ কোভিড ভ্যাকসিন নিয়েছে, শুধুমাত্র সেসব ছাত্রীরা সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত হলে প্রবেশ করতে পারবে। হলে প্রবেশের সময় অবশ্যই টিকা কার্ডের মূল কপি প্রদর্শন করতে হবে এবং টিকা কার্ডের ফটোকপি গেটে জমা দিয়ে প্রবেশ করতে পারবে। পরবর্তীতে অন্য ছাত্রীরা কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ সম্পন্ন করা সাপেক্ষে হলে প্রবেশ করতে পারবে।








Leave a reply