সয়াবিনের রোল ঝটপট বাড়িতেই বানিয়ে ফেলুন

|

ভেজিটেরিয়ান ও ভিগানিজমের ধারণা যতই হালে পানি পেয়েছে, ততই জনপ্রিয় হয়েছে সয়া বড়ি বা সয়া নাগেটস। এটাকে অনেকে প্রাণিজ মাংসের বিকল্প হিসেবেও মর্যাদা দিয়েছেন। তবে ভিগান না হলে যে সয়া বড়ি খাওয়া যাবে না, এমন নয়। অনেকে তো গরু বা খাসির মাংসের ভেতরে সয়া বড়ি দিয়ে খান। অনেকে আলু আর ডিম দিয়ে রান্না করেন। ডিম-আলু ছাড়াও সয়ার বড়ি ভুনাও জনপ্রিয় একটি পদ। নুডুলসের সঙ্গেও প্রায়ই দেখা হয় সয়া নাগেটসের। জেনে নেওয়া যাক সয়াবিনের বড়ি দিয়ে রোল তৈরির ঝটপট অথচ মজাদার একটি রেসিপি। অনেকে আবার এই খাবারটিকেই আদর করে ডাকেন সয়াবিনের কাবাব।

সয়াবিনের বড়ি (সয়া নাগেটস) ২৫০ গ্রাম, সয়াবিন তেল পরিমাণমতো, পানি পরিমাণমতো, গাজর ১টি, ক্যাপসিকাম ১টি, পোঁয়াজকুচি ১ কাপ, ধনেপাতা কুচি ২ টেবিলচামচ, ১টি রসুনকুচি, কুচি করে কাটা কাঁটামরিচ, হলুদগুঁড়া, ধনিয়াগুঁড়া, শুকনো মরিচের গুঁড়া ও গরমমসলা আধা চা–চামচ করে, কর্নফ্লেক্স পরিমাণমতো, মাঝারি সাইজের ১টি সেদ্ধ আলু, ময়দা পরিমাণমতো, কালো গোলমরিচের গুঁড়া আধা চা–চামচ আর পরিবেশনের সময় টমেটো সস।

প্রণালি

১. আড়াই শ গ্রাম সয়া নাগেটস সেদ্ধ করুন। সেগুলো পিষে ভর্তার মতো করে রাখুন।

২. চুলায় প্যান দিন। প্যান গরম হলে দুই টবিল চামচ সয়াবিন তেল নিন। তেল গরম হলে সেখানে কুচি করে কাটা একটা রসুন, কিউব করে কাটা এক কাপ পেঁয়াজ, কুচি করে কাঁটা কাঁচামরিচ দিন। এরপর সেদ্ধ সয়াবিনের বড়ি যোগ করুন।

৩. এগুলো ভাজা হলে একে একে চার ধরনের গুঁড়া মসলা যোগ করুন।

৪. এরপর সেদ্ধ করে রাখা আলু গ্রেট করে যোগ করুন। পরিমাণমতো লবণ দিন। সব ভালোমতো মেশান। একটু ভাজা ভাজা হলে নামিয়ে নিন।

৫. কিছু কর্নফ্লেক্স নিয়ে গুঁড়ো করে রাখুন। ব্রেডক্র্যামও ব্যবহার করতে পারেন।

৬. একটা পাত্রে সামান্য ময়দা, আধা চামচ কালো গোলমরিচের গুঁড়া, লবণ আর পানি দিয়ে গুলিয়ে পাতলা করে একটা তরল বানিয়ে রাখুন।

৭. কাঠিতে চেপে চেপে সয়া আর আলুর মিশ্রণটি লাগান। এরপর ময়দার তরলটি লাগান। তারপর কর্নফ্লেক্স বা বিস্কুটের গুঁড়ায় গড়িয়ে নিন। এরপর তিন থেকে চার মিনিট ধরে ডিপ ফ্রাই করুন। টমেটো কেচাপ দিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন। ঝটপট নাশতায়, বিকেলের আড্ডায় বা পোলাওয়ের সঙ্গে স্টার্টার হিসেবে খেতে পারেন।








Leave a reply