বাসি রুটি খেয়ে দেখুন কত উপকারী

|

আমরা সাধারণত বাসি খাবার-দাবার ফেলে দেই, নয়তো পশু-পাখিদের দেই। এর মধ্যে মাছ, মাংস, ভাত, তরিতরকারি যেমন থাকে তেমনি থাকে বাসি রুটিও। কিন্তু বাসি রুটি স্বাস্থ্যের জন্য যে কতটা গুরুত্বপূর্ণ তা হয়তো আমরা অনেকেই জানি না।

অনেক রকমের দানাশস্য থেকে ময়দা হয় এবং সেই ময়দা দিয়ে তৈরি হয় রুটি। যা শরীর সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। তবে গমের আটার তৈরি বাসি রুটিতে পুষ্টি সবথেকে বেশি। এতে রয়েছে হাই ফাইবার, কম গ্লাইসেমিক এবং কম সোডিয়াম। ফলে, সকালে উঠে নির্ভয়ে সবজির সঙ্গে বাসি রুটি খেতে পারেন।

বাসি খাবার খেলে সাধারণত ডায়রিয়া, পেটের সমস্যা বা হজমের সমস্যা দেখা গিতে পারে। কিন্তু বাসি রুটি খেলে এই সমস্যা হয় না, উপরন্তু নিয়মিত এই রুটি খেলে বশে থাকে ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ। কমে যায় হজমের সমস্যাও।

এবার জেনে নিন বিস্তারিত-

ব্লাডপ্রেসার রাখে নিয়ন্ত্রণে

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে বাসি রুটির জুড়ি মেলা ভার। ঠাণ্ডা দুধের সঙ্গে বাসি রুটি নিয়মিত খেলে উচ্চ রক্তচাপের রোগীদের রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে। এর জন্য বাসি রুটি আধা ঘণ্টা দুধে ভিজিয়ে রাখুন। তারপরে খান।

ডায়াবেটিস বশে থাকে

রাতের বাসি রুটি নিয়মিত সকালে খেলে রক্তে চিনির মাত্রা নিয়ন্ত্রিত হবে। তাই ডায়াবেটিস রোগীরা রোজ সকালে দুধের সঙ্গে বাসি রুটি খেয়ে দেখতে পারেন।

পেটের পক্ষেও ভালো

বাসি রুটি পেটের স্বাস্থ্যের জন্যেও উপকারি। অনেকে পেটে ব্যথা বা বদহজম সমস্যায় ভোগেন। এমন পরিস্থিতিতে কোষ্ঠকাঠিন্য বা অ্যাসিডিটির সমস্যা বাড়তে থাকে। তাই এরা রাতে ঘুমানোর আগে দুধের সঙ্গে বাসি রুটি খেতে পারেন।








Leave a reply