জীবনে সৌভাগ্য ফিরিয়ে আনতে এই ছোট্ট জিনিসটি দান করুন

|

আমরা নিমেষের মধ্যে আমাদের দুঃখ-কষ্টকে একেবারে শেষ করে দিতে চাই, বা জীবনটাকে পাল্টে একটুখানি ভালো ভাবে বাঁচতে চাই। কথায় যে বলে, দান করা ভালো, দান করলে পূণ্য অর্জন হয়। কিন্তু দান করার পদ্ধতি আছে। আমরা অনেকেই ঠিকমতন দান করতে জানিনা, তাই আমাদের জীবনে কোনো উন্নতি হয় না। ভালোভাবে বাঁচার জন্য পূণ্য অর্জন করতে হয়, তাই শাস্ত্রবিদদের বলছেন, পূণ্য অর্জন করতে অবশ্যই দান করুন। গরীব-দুঃখীকে দান করলে, আপনার জীবনেও অর্থ সমাগম হবে। জীবন অনেকখানি পাল্টে যাবে।

শাস্ত্রবিদরা মনে করেন, আপনি যখন গরীব-দুঃখীকে কোন অর্থ দান করছেন, তখন সেই অর্থের উপর লবঙ্গ পুড়িয়ে সেটি গুঁড়ো করে, সেই টাকার ওপরে ছড়িয়ে দিয়ে তারপর যদি সেটি অর্থ গরীব-দুঃখীকে দান করেন, তাহলে কিন্তু আপনার জীবন অনেক সুন্দর হয়ে যাবে। আমরা অনেকেই এই ছোট্ট পদ্ধতিটি জানি না। শাস্ত্রবিদরা মনে করেন, যদি মন্দিরের সামনে বসে থাকা ভিখারি বা দরিদ্র মানুষকে দান করা যায়, আর এই পদ্ধতি মেনে নেওয়া হয়, তাহলে কিন্তু আপনার জীবন নিমেষের মধ্যে পাল্টে যাবে।

তবে অনেকেই এগুলিকে মনে করেন এগুলি যেন কুসংস্কার, কিন্তু এগুলো কোনোভাবেই কুসংস্কার নয়। তবে আপনাকে কয়েকদিন করে দেখতে হবে। পর পর ২১ দিন আপনি মেনে দেখুন। ২১ দিনের মধ্যেই আপনি আপনার প্রত্যাশিত ফল পাবেন। এটি নিশ্চিত করে বলা যায়, অন্তত শাস্ত্রবিদরা তাই বলে থাকেন। কিন্তু মনে অবিশ্বাস নিয়ে যদি কাজটি করেন, তাহলে কিন্তু আপনি জীবনে কোনদিন সফলতা পাবেন না। তাই অবিশ্বাস ছেড়ে দিতে হবে। মনে অবিশ্বাস না রেখেই করে ফেলুন, এই ছোট্ট কাজটি।








Leave a reply