করোনায় সুস্থতার হার ক্রমেই বাড়ছে

|

রাজধানীসহ সারাদেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতাল ও বাসায় চিকিৎসাধীন রোগীদের সুস্থতার হার ক্রমেই বাড়ছে। দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৩ হাজার ৬২৪ জন। এ নিয়ে মোট সুস্থ রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ১ লাখ ৭২ হাজার ৬১৫ জনে।

করোনার নমুনা শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৫৯ দশমিক ৪৫ শতাংশ।গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে উঠা ৩ হাজার ৬১৫ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১ হাজার ৭৬৪ জন, চট্টগ্রামে ৭২১, রংপুরে ১৬৪, খুলনায় ১৯১, বরিশালে ১০৭ এবং রাজশাহীতে ১৬৬, সিলেটে ৪৮২ জন এবং ময়মনসিংহে ২৯ জন সুস্থ হন।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাস শনাক্তে গত ২৪ ঘণ্টায় ৯১টি করোনা শনাক্তকরণ আরটি-পিসিআর ল্যাবরেটরিতে ১৩ হাজার ১৫৫টি নমুনা সংগ্রহ ও ১২ হাজার ৯৪৩টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়।একই সময়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন আরও ২ হাজার ৪০১ জন।ফলে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল দুই লাখ ৯০ হাজার ৩৬০ জনে।

এ নিয়ে মোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৪ লাখ ২০ হাজার ৪৯৯ জনে।এছাড়া করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩৯ জন মারা গেছেন। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল তিন হাজার ৮৬১ জনে।এদিকে,রাজধানীসহ সারাদেশে ২১ আগস্ট পর্যন্ত মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে সর্বমোট ৩ হাজার ৮৬১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

তাদের মধ্যে পুরুষ তিন হাজার ৪৬ (৭৮ দশমিক ৮৯ শতাংশ) এবং নারী ৮১৫ জন (২১ দশমিক ১১ শতাংশ)।বিভাগীয় পরিসংখ্যান অনুসারে, করোনায় মোট মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১ হাজার ৮৫৪ জন (৪৮ দশমিক ২ শতাংশ), চট্টগ্রাম বিভাগে ৮৬৩ (২২ দশমিক ৩৫ শতাংশ),রাজশাহী বিভাগে ২৫১ (৬ দশমিক ৫০ শতাংশ), খুলনা বিভাগে ৩১৬ (৮ দশমিক ১৮ শতাংশ), বরিশাল বিভাগে ১৫১ (৩ দশমিক ৯১ শতাংশ),

সিলেট বিভাগে ১৮৩ (৪ দশমিক ৭৪ শতাংশ), রংপুর বিভাগে ১৬০ (৪ দশমিক ১৪ শতাংশ) ও ময়মনসিংহে ৮৩ জন (২ দশমিক ১৫ শতাংশ)।গত ২৪ ঘণ্টায় মোট করোনায় মৃত ৩৯ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ২৩ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের পাঁচ জন, রাজশাহী বিভাগে একজন, খুলনা বিভাগে তিনজন, বরিশাল বিভাগে দুইজন, সিলেট বিভাগে চারজন এবং ময়মনসিংহ বিভাগের একজন রয়েছেন।উল্লেখ্য, করোনাভাইরাস শনাক্তে গত ২৪ ঘণ্টায় ৯১টি করোনা শনাক্তকরণ আরটি-পিসিআর ল্যাবরেটরিতে ১৩ হাজার ১৫৫টি নমুনা সংগ্রহ ও ১২ হাজার ৯৪৩টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। একই সময়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন আরও দুই হাজার ৪০১ জন।ফলে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল দুই লাখ ৯০ হাজার ৩৬০ জনে। এ নিয়ে মোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৪ লাখ ২০ হাজার ৪৯৯ জনে।








Leave a reply