ফের বিতর্কে বাদশা,ওয়ার্ল্ড রেকর্ড করতে টাকা দিয়ে গানের ভিউ কিনেছেন!

|

প্রথমে কৃতজ্ঞতা স্বীকার করেননি ‘গেন্দা ফুল’ গানে মূল স্রষ্টার প্রতি । এনিয়ে কিছু কম বিতর্কের মুখ পড়তে হয়নি র‌্যাপার বাদশা-কে। সমালোচনার মুখ পড়ে পরে অবশ্য বাদশা, রতন কাহারের নাম ‘গেন্দা ফুল’ গানে উল্লেখ করেন, এবং শিল্পীকে ৫ লক্ষ টাকা দেন। এবার দ্বিতীয় মিউজিক অ্যালবাম ‘পাগল হ্যায়’ মুক্তির পর ফের বিতর্কে বাদশা। তিনি এবার মুম্বই পুলিসের জালে পড়ছেন। মুম্বই ক্রাইম ব্রাঞ্চের রিপোর্ট অনুযায়ী গানটির ৭.২ কোটি ভিউ পেতেই ৭২ লক্ষ টাকা খরচ করেছেন বাদশা। 

বাদশার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের ভিত্তিতেই তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডেকে পাঠায় মুম্বই ক্রাইম ব্রাঞ্চ। বাদশাকে জিজ্ঞাসাবাদের পর নন্দকুমার ঠাকুর ডেপুটি কমিশনার অফ পুলিশ মুম্বই মিররকে জানান, ”গায়ক স্বীকার করেছেন যে তিনি ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সর্বাধিক ভিউ বাড়িয়ে বিশ্ব রেকর্ড করতে চেয়েছিলেন। আর সেকারণেই তিনি নির্দিষ্ট কোম্পানিকে ৭২ লক্ষ টাকা দেন। তিনি মার্কিন গায়িকা টেইলর সুইফট ও কোরিয়ান ব্যান্ড BTS-এর রেকর্ড ভাঙতে চেয়েছিলেন।”

যদিও শনিবার একটি বিবৃতি দিয়ে তাঁর বিরুদ্ধে টাকা দিয়ে ভিউ কেনার অভিযোগ অস্বীকার করেন বাদশা। তিনি বলেন, ”আমাকে মুম্বই পুলিসের তরফে ডেকে পাঠানো হয়েছিল। আমি পুলিসকে জানিয়েছি, তদন্ত সমস্ত রকম সহযোগিতা করবো। তবে আমার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ উঠেছে তা আমি অস্বীকার করেছি। আমি কোনও দিনই এ ধরনের অনৈতিক কাজে সমর্থন করি না, আইনের প্রতি আমার বিশ্বাস আছে। সত্যিটা সামনে আসবে।”

এদিকে বাদশাকে সোমবার ফের জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলে খবর মিলেছে। এর আগে বাদশা দাবি করেছিলেন তাঁর গানে একদিনে ৭.৫ মিলিয়ন ভিড হয়েছে এবং এটি বিশ্ব রেকর্ড করেছে। যদিও গুগল তা অস্বীকার করে। প্রসঙ্গত, সম্প্রতি টাকা দিয়ে ফলোয়ার বাড়ানোর অভিযোগ উঠেছে দীপিকা পাড়ুকোন, প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, বিরাট কোহলিদের বিরুদ্ধেও। এই মামলায় তাঁদেরকেও জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে বলে খবর মিলেছে।








Leave a reply