জাতিসংঘে চীন কাশ্মির নিয়ে আবারও

|

কাশ্মির ইস্যু বুধবার আবারও পাকিস্তানের পক্ষে জাতিসংঘে উত্থাপনের চেষ্টা করেছে চীন । বুধবার উত্থাপিত এই প্রস্তাবের ওপর নিরাপত্তা পরিষেদে কোনো আলোচানা হয়নি কিংবা বিবৃতি দেওয়া হয়নি।

ভার্চুয়াল বৈঠক শেষে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশি বলেছেন, ‘এই নিয়ে নিরাপত্তা পরিষদে গত এক বছরের তিনটি বৈঠকে জম্মু ও কাশ্মির ইস্যু উত্থাপন হলো। ভারতের দাবির সঙ্গে এটি মেলে না। ভারত তো এই ইস্যুকে তাদের ‘অভ্যন্তরীণ বিষয়’ বলে দাবি করে!’

২০১৯ সালের ৫ আগস্ট ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকার জম্মু ও কাশ্মিরের বিশেষ রাজ্যের মর্যাদা বাতিল করে। এই রাজ্যটিকে কেন্দ্র শাসিত দুটি অঞ্চলে রূপ দেয় মোদি সরকার।

জম্মু ও কাশ্মিরের বাসিন্দাদের এই সাংবিধানিক অধিকারকে পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠতার জোরে বাতিল করায় বিষয়টি জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে দুইবার উত্থাপন করে পাকিস্তান। কিন্তু শেষ পর্যন্ত নিরাপত্তা পরিষদ এই ইস্যুতে কোনো ধরনের বিবৃতি দেওয়া থেকে বিরত থাকে।

বুধবার ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, আক্ষরিক অর্থেই যেটা ভারতের একটা অভ্যন্তরীণ বিষয়, নিরাপত্তা পরিষদে সেটা তোলার ব্যাপারে চীনের চেষ্টা এবারই প্রথম নয়। এর আগেও দুইবার হয়েছে।

আমাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে এভাবে চীনের বার বার নাক গলানোর চেষ্টা আমরা বরদাস্ত করছি না। এই চেষ্টা যে ফলপ্রসূ হচ্ছে না, যাতে আগামী দিনে এমন চেষ্টা আর না হয়।’








Leave a reply