জেনে নিন মাটির ভাঁড়ে রোজ চা খাওয়ার উপকারিতা

|

উত্তুরে হাওয়ার দাপটে বাড়ছে শীত। শহরের উষ্ণতার পারদ নিম্নমুখী। এই সময় সকালের আলসেমি যেন আরও বেশি করে পেয়ে বসে। চোখে লেগে থাকে একরাশ ঘুম। এই ঘুম কাটিয়ে উঠতে প্রয়োজন এক পেয়ালা চা। চা বাড়িতে তৈরি হলে দামি কাপে চুমুক দিতেই পারেন। কিন্তু মাটির ভাঁড়ের চায়ের স্বাদই যে আলাদা। তাতে মেশানো থাকে সোঁদা মাটির গন্ধ। উষ্ণ ছোঁয়াতেই তা আরও তীব্র হয়ে ওঠে। চায়ের স্বাদ যেন কয়েকগুণ বেড়ে যায়।

মাটির ভাঁড়ে চা পান করার সুখ অনেকেই উপভোগ করেন। কিন্তু তাতে স্বাস্থ্যের উপকার হয় কি? আলবাৎ হয়! এমনটাই বলছেন বিশেষজ্ঞরা। এর কয়েকটি কারণও দেখিয়েছেন তাঁরা। বিশেষজ্ঞদের দাবি –

১) মাটির ভাঁড়ে চা ঢাললে তার পুষ্টিগুণ বেড়ে যায়। মাটিতে খনিজ, ফসফরাস, আয়রন, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়ামের মতো উপাদান থাকে তা শরীরের পক্ষে খুবই উপকারী। ক্লান্তি দূর হয়।

২) দুধ চা খেলে অনেকেরই অ্যাসিডিটি বেশি হয়। মাটির তৈরি ভাঁড়ে অ্যালকালাইন থাকে। ফলে তাতে চা খেলে অ্যাসিডিটির সম্ভাবনা খুব বেশি থাকে না। এই কারণে যাঁদের হজমের সমস্যা রয়েছে, তাঁদের অনেক সময় মাটির গ্লাসে জল খাওয়ার পরামর্শও দেওয়া হয়।

৩) প্লাস্টিকের কাপে চা খাওয়া একেবারেই উচিত হয়, এমনটাই মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। প্লাস্টিকের মধ্যে গরম চা ঢালা হলেই রাসায়নিক বিক্রিয়া হয়। তা শরীরের পক্ষে খুবই ক্ষতিকারক। তাছাড়া মাটির ভাঁড় পরিবেশ বান্ধব। এতে দূষণ ছড়ানোর কোনও সম্ভাবনাই নেই।








Leave a reply