জেনে নিন সঠিক ভাবে মাস্ক ব্যবহার করার উপায়

|

কোভিড লড়াইয়ে “মাস্ক ইজ ইওর টাস্ক।” বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা আগেই ঘোষণা করেছিল যে করোনা লড়াইয়ে মাস্ক অন্যতম প্রধান অস্ত্র। কিন্তু সঠিক ভাবে মাস্ক ব্যবহার না করলে করোনা থেকে রক্ষা পাওয়া যাবে না।
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে একমাত্র তিন স্তরের মাস্কই করোনার প্রবেশ রুখতে সম্ভব। এমনকি এই দিকটাও খেয়াল রাখতে হবে যে মাস্ক যেন মুখ ও নাক সম্পূর্ণ আবরণ করে রাখে। তাই শুধু মাস্ক থাকলেই হবেনা, সঠিক ভাবে ব্যবহারও করতে হবে মাস্ক। অনেক ক্ষেত্রেই দেখতে মিলেছে মাস্ক পরেও এই ৭ ভুলের জন্য করোনা প্রবেশ করতে পারে আপনার শরীরে।
জেনে নিন সঠিক মাস্ক ব্যবহার করার উপায়:-
১. মাস্কের উপরের অংশ একেবারেই স্পর্শ করবেন না। যদি মাস্কে ঘনঘন স্পর্শ করেন তাহলে উপরের অংশ দিয়ে করোনা শরীরের মধ্যে প্রবেশের সম্ভাবনা বৃদ্ধি পায়।
২. একই মাস্ক সারাদিন পরে থাকবেন না। সারাদিন ধরে একই মাস্ক পরে থাকলে করোনাভাইরাস আপনার শরীরে প্রবেশ করতে পারে।
৩. কখনই ভেজা মাস্ক ব্যবহার করবেন না। ভেজা মাস্কের ফলে শুধুমাত্র আপনার শ্বাসকষ্টের সমস্য়াই হয় না ভাইরাসের প্রবেশের সম্ভাবনাও বাড়তে পারে।
৪. মাস্ক যেন আপনার নাককে সম্পূর্ণ আবৃত করে রাখে। যদি আপনার নাক মাস্কের বাইরে থাকে তাহলে নাকের মাধ্যমে শরীরে ভাইরাস প্রবেশ করতে পারে।

৫. কথা বলার সময় একদম মাস্ক মুখ থেকে সরাবেন না। কথা বলার সময় ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। তাই কথা বলার সময় মাস্ক অবশ্যই ব্যবহার করবেন।
৬. মাস্ক সরানোর সময় অধিক সতর্কতা অবলম্বন করুন। মুখ থেকে অত্যন্ত সচেতন ভাবে মাস্ক খুলুন। তারপর সঙ্গে জীবাণুনাশক ছড়িয়ে দিন। আর যদি ঘরের বাইরে থাকেন তাহলে মাস্কটিকে একটি বাক্সের মধ্যে ভরে রাখুন বাড়ি পৌঁছানো পর্যন্ত।
৭. মাস্ককে পুনর্ব্যাবহারের আগে সব সময় ভাল করে জীবাণুনাশক দিয়ে পরিষ্কার করবেন। তারপর সূর্যের আলোয় ৫ ঘন্টা রাখুন বা  ৫ মিনিট ইস্ত্রি করে নিন। তারপরই আবার ব্যবহার করুন মাস্ক।








Leave a reply