দীর্ঘদিন গাজর সংরক্ষণের উপায় জানুন

|

সঠিকভাবে সংরক্ষণের অভাবে গাজর পচে যায়। এক্ষেত্রে ফ্রিজে রাখলেও অনেক সময় লাভ হয় না। গাজর কেবল সুস্বাদুই নয়, পুষ্টিকরও বটে। শীতকালিন সবজি হলেও প্রায় সারা বছরই পাওয়া যায়। ভারতীয় রন্ধনশিল্পী কুনাল কাপুরের দেয়া এক পরামর্শ অনুযায়ী আপনিও গাজর সংরক্ষণ করতে পারেন।
প্রথমেই গাজর ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিতে হবে। এজন্য গাজর ১০ থেকে ১৫ মিনিট পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। পরে তা ‘কিচেন তোয়ালে’ দিয়ে মুছে নিন। একটা ছুরির সাহায্যে গাজরের ওপরের পাতলা আবরণ তুলে নিতে হবে।

কুনাল জানান, কখনো উপরের পাতলা আবরণ না তুলে গাজর খাওয়া ঠিক না। এতে অনেক ক্ষুদ্র জীবাণু আটকে থাকতে পারে যা পাকস্থলীতে সংক্রমণের সৃষ্টি করে। এছাড়াও, এতে গাজরে ব্যবহৃত সারও থেকে যেতে পারে।

দীর্ঘদিন সংরক্ষণ করার উপায়

গাজর অনেকদিন সংরক্ষণ করতে চাইলে প্রথমে এর পাতা ছাড়িয়ে ভালো মতো দুএকবার ধুয়ে নিন। এরপর তা একটা প্লাস্টিকের পাত্রে পানিতে ডুবিয়ে রাখুন, খেয়াল রাখতে হবে যেন গাজর পানিতে ডুবন্ত অবস্থায় থাকে।

বাক্সের ঢাকনা আটকে তা রেফ্রিজারেইটরে সংরক্ষণ করুন।

দুইদিন পর পর এই পানি পরিবর্তন করলে গাজর আট থেকে ১০ দিন ভালো রাখা যায়।

প্লাস্টিক বা কাচের পাত্রে টিস্যু রেখে তাতে কাটা গাজর রাখতে পারেন। পাত্রের মুখ বন্ধ করে রেফ্রিজারেইটরে সংরক্ষণ করুন। তিন-চার দিন পর পর টিস্যু বদলে নিন।

গাজর কখনো জিপ লক করে অথবা প্লাস্টিকের ব্যাগে রাখা ঠিক নয়। কারণ এতে রয়েছে রাসায়নিক উপাদান যা খাবারের সঙ্গে বিক্রিয়া করে আর্দ্রভাব আনে এবং গাজর দ্রুত নষ্ট করে ফেলে।








Leave a reply